আজ: শুক্রবার | ৭ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ২৪শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | ২৫শে রমজান, ১৪৪২ হিজরি | রাত ১১:০৭
শিরোনাম: সোনারগাঁয়ে লন্ডন প্রবাসীর পক্ষ থেকে দুস্থদের মধ্যে নগদ অর্থ বিতরণ     বন্দরে কৃষি জমির মাটি কেটে তৈরী করছে গভীর পুকুর,প্রশাসনের ভূমিকা প্রশ্নবিদ্ধ     সোনারগাঁয়ে ইঞ্জিনিয়ার মাসুম এক অসহায়কে নগদ অর্থ প্রদান করলেন     সোনারগাঁয়ে ছিনতাইকারিদের ছুরিকাঘাতে অটোরিক্সা চালক আহত     সোনারগাঁওয়ে গ্রাম পুলিশের মাঝে সাইকেল হিজরাদের মধ্যে ত্রাণ বিতরণ     কুষ্টিয়ায় মেছো বাঘ উদ্ধার     বন্দরে যৌতুক না পেয়ে নববধূ বিতারিত     বন্দরে জালনোটসহ জনতা কর্তৃক আটক-১     কলার থেকেও শতগুণ বেশি উপকারী খোসা!     স্বামী ও ভাসুরের নির্যাতন সইতে না পেরে বন্দরে ২ সন্তানের জননী আত্মহত্যা    
সংবাদ দেখার জন্য ধন্যবাদ

সম্পাদকের বিরুদ্ধে সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় ইমনের মিথ্যে অভিযোগ

২৯ এপ্রিল, ২০২১ | ১২:২৮ অপরাহ্ণ | bbc press | 39 Views

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ নারায়ণগঞ্জ সিদ্ধিরগঞ্জ থানাধীন বার্মাস্ট্যান্ড এলাকার বীর মুক্তিযোদ্ধা মৃত. ইসমাঈল এর বখাটে পুত্র রফিকুল ইসলাম ইমন (৩৮) এর বিরুদ্ধে সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় একটি মাদক মামলা রয়েছে। সিদ্ধিরগঞ্জ থানা পুলিশ মাদকসহ ইমন ও তার সহযোগী বীর মুক্তিযোদ্ধা জয়নাল আবেদীন এর ছেলে রাশেদুল ইসলাম ডালিমকে গ্রেফতার করে। গ্রেফতারের এই বিষয়টি গণমাধ্যমেও প্রকাশিত হয়।

কিছুদিন আগে ইমনের ভবনের ময়লাযুক্ত পানিতে প্রতিবেশী উকিল কাজী চলাচল করতে না পেরে গৃহবন্দি হয়ে পড়ায় নিরুপায় হলে, এ বিষয়ে আলোরধারা২৪.কমসহ অন্যান্য গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশিত হয়। মাদকাসক্ত ও মাদক বিক্রেতা ইমনকে নিয়ে এ সংবাদটি প্রকাশিত হলে ইমন তার পোষ্যভুক্ত সাংবাদিকের সহযোগিতায় সিদ্ধিরগঞ্জ মডেল থানায় আলোরধারা২৪.কমের সম্পাদক আসলাম মিয়ার বিরুদ্ধে মানহানিকর সংবাদ প্রকাশ উল্লেখ করে একটি মিথ্যা অভিযোগ করেন।
ইমনের অভিযোগের বিষয়টি সম্পাদক আসলাম মিয়ার জ্ঞাত ছিল না। ইমনের এই অভিযোগটিকে পুঁজি করে তার পোষ্যভুক্ত সাংবাদিক আসলাম মিয়াকে জড়িয়ে কয়েকটি নিউজ পোর্টালে সংবাদ প্রকাশ করলে এ সংবাদগুলো সম্পাদক আসলাম মিয়ার দৃষ্টিতে পড়ে।
মাদকাসক্ত ইমনের পক্ষে সংবাদ প্রকাশের কারণ ও ইমনকে সহযোগীতা করার নেপথ্যে বেড়িয়ে আসে সিদ্ধিরগঞ্জ থানার একজন ধূর্ত ও পুলিশের সোর্স হিসেবে সবাই যাকে চেনেন এমনই এক সাংবাদিকের নাম।
সূত্রে জানা যায় যে, থানায় অভিযোগের নাটের গুরু নামধারী সাংবাদিক ইমনের মাদক ব্যবসায়ের প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষ শেল্টারদাতা এবং নিজেকে ইমনের বন্ধু হিসেবে সব সময় প্রচার করে বেড়ায়। এই সূত্র ধরে কথিত সেই সাংবাদিক ইমনের কাছ থেকে অবৈধ পন্থায় হাতিয়ে নেয় লক্ষ লক্ষ টাকা।
একজন সাংবাদিক হয়ে সে কীভাবে একজন মাদক ব্যবসায়ীকে প্রশ্রয় দেয় এমন প্রশ্ন উঠেছে সাংবাদিক মহলে।
অপরদিকে, ইমন একজন ফেন্সিডিলসহ গ্রেফতার হওয়া মাদক আসামী হয়ে তাকে (ইমন) নিয়ে প্রকাশিত বস্তুনিষ্ঠ সংবাদকে মিথ্যা অপপ্রচার সংবাদ বলে থানায় সম্পাদকের বিরুদ্ধে অভিযোগ করার সাহস কী করে পায় এই গুঞ্জন সকলের মুখে মুখে। একজন অপরাধী হয়ে কার আশ্রয়ে ও প্রশ্রয়ে, অধরা কোন ক্ষমতাসীনের ছত্রছায়ায় এমন সাহস পায় এই প্রশ্ন সচেতন মহলের কাছে রয়েই যায়।
সম্পাদক আসলাম মিয়ার বিরুদ্ধে এমন ঘটনা শুনে সাংবাদিক মহল নিন্দা ও ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। এ মিথ্যা অভিযোগের বিষয়ে ইমনের বিরুদ্ধে আইনী পদক্ষেপ নিয়ে উপর্যুক্ত ব্যবস্থা গ্রহনে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর কাছে জোর দাবি জানিয়েছেন সাংবাদিক মহল। সাংবাদিক মহল বিনয়ের সহিত গণমাধ্যমের ব্যক্তিবর্গের কাছে অনুরোধ করে বলেন, যে কোন সংবাদ প্রকাশ করার আগে অবশ্যই সংবাদের বিষয় বস্তুর সত্যতা নিশ্চিত হয়ে প্রকাশ করলে সংবাদপত্রের মান বাড়বে। অন্যথায় পত্রিকার মান ক্ষুণ্ণ হয়, যা আমাদের কাম্য নয়।

 





Comment Heare

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Translate »