আজ: শুক্রবার | ৭ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ২৪শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | ২৫শে রমজান, ১৪৪২ হিজরি | রাত ১০:৫৬
শিরোনাম: সোনারগাঁয়ে লন্ডন প্রবাসীর পক্ষ থেকে দুস্থদের মধ্যে নগদ অর্থ বিতরণ     বন্দরে কৃষি জমির মাটি কেটে তৈরী করছে গভীর পুকুর,প্রশাসনের ভূমিকা প্রশ্নবিদ্ধ     সোনারগাঁয়ে ইঞ্জিনিয়ার মাসুম এক অসহায়কে নগদ অর্থ প্রদান করলেন     সোনারগাঁয়ে ছিনতাইকারিদের ছুরিকাঘাতে অটোরিক্সা চালক আহত     সোনারগাঁওয়ে গ্রাম পুলিশের মাঝে সাইকেল হিজরাদের মধ্যে ত্রাণ বিতরণ     কুষ্টিয়ায় মেছো বাঘ উদ্ধার     বন্দরে যৌতুক না পেয়ে নববধূ বিতারিত     বন্দরে জালনোটসহ জনতা কর্তৃক আটক-১     কলার থেকেও শতগুণ বেশি উপকারী খোসা!     স্বামী ও ভাসুরের নির্যাতন সইতে না পেরে বন্দরে ২ সন্তানের জননী আত্মহত্যা    
সংবাদ দেখার জন্য ধন্যবাদ

মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষা কেন্দ্রে স্বাস্থ্যবিধি উপেক্ষিত

০৩ এপ্রিল, ২০২১ | ১০:৪২ পূর্বাহ্ণ | bpseraj | 2408 Views

দেশে মহামারি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা বেশ কিছুদিন যাবৎ বেড়েই চলেছে। এমন পরিস্থিতিতে আজ শুক্রবার (২ এপ্রিল) সকাল ১০ টা থেকে ১১টা পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হলো ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষের এমবিবিএস ভর্তি পরীক্ষা। পরীক্ষায় বসেছিলেন ১ লাখ ২২ হাজার ৮৭৪ জন পরীক্ষার্থী। প্রতিটি পরীক্ষার হলে স্বাস্থ্যবিধি মানতে কড়াকড়ি থাকলেও উল্টো চিত্র ছিলো পরীক্ষা কেন্দ্রের বাইরে।

পরীক্ষার আগে ও পরে স্বাস্থ্যবিধি উপেক্ষা করে পরীক্ষার হলের গেটে পরীক্ষার্থী এবং তাদের স্বজনরা জমায়েত হন। দূরত্ব তো দূরের কথা উপচে পড়া ভিড় ছিলো কেন্দ্রগুলোতে।

রাজধানীর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, ঢাকা কলেজ, তেজগাঁও সরকারি কলেজ, ইডেন মহিলা কলেজ, টিচার্স ট্রেনিং কলেজ, গার্হস্থ্য অর্থনীতি কলেজ কেন্দ্রের সামনে নির্দিষ্ট সময়ের আগে শিক্ষার্থীরা উপস্থিত হন। নির্দেশনা অনুযায়ী পরীক্ষা শুরু হওয়ার দুই ঘণ্টা পূর্বে স্বাস্থ্যবিধি মেনে পরীক্ষার্থীরা পরীক্ষাকেন্দ্রে প্রবেশ করেন।

তবে পরীক্ষার পুরোটা সময় ধরে এসব কেন্দ্রের বাইরের চিত্র পুরো উল্টো ছিল। পরীক্ষার্থীদের সঙ্গে আসা স্বজনরা যে যার মতো স্বাস্থ্যবিধি উপেক্ষা করে জটলা করে দাঁড়িয়ে বা বসে ছিলেন। একই চিত্র দেখা যায় পরীক্ষার পরেও। একই জায়গায় শতশত শিক্ষার্থী ও তাদের স্বজনরা ভিড় করেন। অনেকে স্বাস্থ্যবিধি উপেক্ষা করে বাসে উঠেছেন।

এর আগে গত ২২ মার্চ মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষা বন্ধে রিট করেছিলেন উত্তরার বাসিন্দা তৈমুর খান। আকস্মিক করোনোভাইরাসের সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় পরীক্ষা স্থগিত চেয়ে রিটটি করা হয়। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়সহ অন্য সরকারি ও বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলো এই সেশনে ভর্তির কোনো কার্যক্রম শুরু করেনি। অন্য সব বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি কার্যক্রম শুরুর অনেক আগেই মেডিকেলে ভর্তি কার্যক্রম সম্পন্ন হলে শিক্ষার্থীরা পরবর্তী সময়ে তাদের অন্য কোনো বিষয়ে ও বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির সুযোগ সীমিত হয়ে যাবে, এসব যুক্তিতে রিটটি করা হয়। বিচারপতি মো. খসরুজ্জামান ও বিচারপতি মো. মাহমুদ হাসান তালুকদারের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চে রিটটি দাখিল করা হয়েছিল।





Comment Heare

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Translate »