আজ: শুক্রবার | ৭ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ২৪শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | ২৫শে রমজান, ১৪৪২ হিজরি | রাত ৯:৪৭
শিরোনাম: সোনারগাঁয়ে লন্ডন প্রবাসীর পক্ষ থেকে দুস্থদের মধ্যে নগদ অর্থ বিতরণ     বন্দরে কৃষি জমির মাটি কেটে তৈরী করছে গভীর পুকুর,প্রশাসনের ভূমিকা প্রশ্নবিদ্ধ     সোনারগাঁয়ে ইঞ্জিনিয়ার মাসুম এক অসহায়কে নগদ অর্থ প্রদান করলেন     সোনারগাঁয়ে ছিনতাইকারিদের ছুরিকাঘাতে অটোরিক্সা চালক আহত     সোনারগাঁওয়ে গ্রাম পুলিশের মাঝে সাইকেল হিজরাদের মধ্যে ত্রাণ বিতরণ     কুষ্টিয়ায় মেছো বাঘ উদ্ধার     বন্দরে যৌতুক না পেয়ে নববধূ বিতারিত     বন্দরে জালনোটসহ জনতা কর্তৃক আটক-১     কলার থেকেও শতগুণ বেশি উপকারী খোসা!     স্বামী ও ভাসুরের নির্যাতন সইতে না পেরে বন্দরে ২ সন্তানের জননী আত্মহত্যা    
সংবাদ দেখার জন্য ধন্যবাদ

কালীগঞ্জে চুরি হওয়া বাচ্চা উদ্ধার

২৭ এপ্রিল, ২০২১ | ১:৪৫ অপরাহ্ণ | bbc press | 84 Views

বিবিসি প্রেসঃ ঝিাইদহ কালীগঞ্জে চুরি হয়ে যাওয়া সদ্য প্রসূত কন্যাসন্তান ১৫ ঘন্টা পর উদ্ধার করেছে ঝিনাইদহ র‌্যাব। মঙ্গলবার সকাল ১০ টার দিকে কালীগঞ্জ শহরের নিশ্চিন্তপুর গ্রামের দাসপাড়ার প্রিয়া খাতুন-জাহাঙ্গীর দম্পত্তির বাড়ি থেকে শিশুটিকে উদ্ধার করা হয়। ঘটনার সাথে জড়িত থাকায় প্রিয়া খাতুন ওরফে মিনা কে আটক করে র‌্যাব। আটক প্রিয়া খাতুন নিশ্চিন্তপুর এলাকায় রফিকুল ইসলামের ভাড়া বাড়িতে থাকত। উদ্ধারের সময় ঝিনাইদহ-৪ আসনে সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজিম আনার ও উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান শিবলী নোমানি উপস্থিত ছিলেন।
এর আগে সোমবার সন্ধ্যায় ইফতারের সময় কালীগঞ্জ শহরের সেবা ক্লিনিক থেকে সদ্য প্রসূত এই বাচ্চাটি চুরি হয়। শিশুটি কালীগঞ্জ শহরের বলিদাপাড়া গ্রামের ইজিবাইক চালক মনিরুল ইসলামের সন্তান। সোমবার সন্ধ্যায় বাচ্চাটি হারিয়ে যাওয়ার পর স্বজনরা বিক্ষুদ্ধ হয়ে উঠে। সোমবার রাতেই শিশুটি উদ্ধারে মাঠে নামে ঝিনাইদহ র‌্যাব ও পুলিশের পৃথক কয়েকটি টিম। শিশুটি বাচ্চাটি চুরি হবার পর ক্লিনিক মালিক কালীগঞ্জ থানা পুলিশ কে খবর দিলে, থানার এসআই আবুল কাশেম ক্লিনিকে আসে ঘটনা শুনে মনিরুল ইসলাম কে দিয়ে লিখিত আবেদন করিয়ে নেয়।
উদ্ধারের পর র‌্যাব-৬ ঝিনাইদহ ক্যাম্পের কমান্ডার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার কামাল উদ্দিন জানান, ঘটনাটি জানার পর থেকেই চুরি হওয়া কন্যা শিশুটিকে উদ্ধারে জন্য বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালায় র‌্যাবের একাধিক টিম। পরবতীতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারে, কালীগঞ্জ শহরের নিশ্চিন্তপুর দাসপাড়ায় একটি বাড়িতে রয়েছে শিশুটি। পরে সেখানে অভিযান চালিয়ে প্রিয়া খাতুন-জাহাঙ্গীর দম্পত্তির বাড়ি থেকে নবজাতককে উদ্ধার করা হয়। এ সময় ঘটনার সাথে জড়িত প্রিয়া খাতুনকে আটক করা হয়। তবে স্বামী পলাতক থাকায় তাকে আটক করা সম্ভব হয়নি। তিনি আরো জানান, জিজ্ঞাসাবাদে প্রিয়া জানায়, দীর্ঘদিন তাদের সন্তান হচ্ছিল না। তাই দু’জন পরামর্শ করে শিশুটিকে চুরি করেছিল। তবে, আটক প্রিয়ার দাবি, আমি বাড়ি পাশে শিশুটি পড়ে পেয়েছি।
চুরি হয়ে যাওয়া শিশুর বাবা কালীগঞ্জ বলিদাপাড়া গ্রামের ইজিবাইক চালক মনিরুল ইসলাম জানান, সোমবার সকালে আমার স্ত্রী সাবানা বেগম প্রসব যন্ত্রনা শুরু হলে কালীগঞ্জ শহরের সেবা ক্লিনিকে ভর্তি করি। বিকাল ৩ টার দিকে সিজারের মাধ্যমে কন্যা সন্ত্যান ভুমিষ্ট হয়। এরপর ক্লিনিকের ২০৩ নং কেবিনে রাখা হয়। কন্যা ও তার মা সুস্থ্য ছিল। বিকালে এক অপরিচিত বোরকা পরিহিত মহিলা এসে আমার বাচ্চাকে কোলে নিয়ে আদর করে এবং বিভিন্ন ধরনের গল্প করতে থাকে। এরপর মহিলাটি ক্লিনীকের রিসিভশনে বসে ছিল, তবে মহিলাটা কোন রোগীর আত্মীয় হবে ভেবে কেউ তাকে সন্দেহ করেনি। সন্ধ্যায় শিশু এবং তার মায়ের সাথে স্বজনরা যখন ইফতার করে মাগরিবের নামাজ পড়তে যায়। এ সময় বাচ্চাটিকে নিয়ে চলে যায় ওই নারী পালিয়ে যায়। তবে সস্তান ফিরে পাওয়ার পর আমি এবং আমার পবিারের সবাই খুশি।
এদিকে সেবা ক্লিনিক টি দীর্ঘদিন ব্যাসা চালিয়ে আসছে কিন্তু ক্লিনিক টিতে কোন সিসি ক্যামেরা নেই। সিজার অপারেশনের পর প্রায় ৩ ঘন্টা পর বাচ্চা টি চুরি হয়।





Comment Heare

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Translate »